প্রাকৃতিকভাবে ফর্সা হওয়ার উপায়

প্রাকিতিকভাবে ফর্সা হওয়ার উপায়ঃ এমন কোন নারী বা পুরুষ আছে, যে ফর্সা হতে চাইনা। এমনকি ফর্সা মানুষেরাও আরো বেশি ফর্সা হতে চাই। বর্তমানে অনেক রকমের নাইট ক্রিম পাওয়া যাই যেগুলা ব্যবহার করে অনেকেই ফর্সা হয়ে যাচ্ছে। অনেকে আবার এই গুলা মেখে নিজের ত্বকের বারোটা বাজায়ে ফেলছে। আজকে আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরবো প্রাকৃতিকভাবে ফর্সা হওয়ার উপায় গুলা, যা সম্পুর্ন শতভাগ কার্যকারী।

 

প্রাকৃতিকভাবে ফর্সা হওয়ার উপায়

আমাদের আজকের আর্টিকেল শুরু করার পূর্বে একটি জিনিস ক্লিয়ার করা উচিৎ। সেটা হলো ফর্সা হওয়া আর ত্বক উজ্জ্বল করা এক জিনিস নাহ। প্রাকিতিক ভাবে বলেন আর আর্টিফিশিয়াল ভাবেই বলুন, কালোর মানুষের ত্বক ধবধবে ফর্সা করা সম্ভব নাহ। তবে চাইলে ত্বক কিছুটা উজ্জ্বল করা সম্ভব, যেটা দেখলে যে কেও বলবে যে স্কিন ফর্সা হয়েছে। আমরা আজকে জানবো লেবু, হলুদ, চিনি, আলু, দুধ ইত্যাদি দিয়ে প্রাকিতিকভাবে ফর্সা হওয়ার উপায়। 

 

লেবু ও হলুদ দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায়

এক চামচ হলুদ গুড়া নিন তাতে কিছু পরিমান লেবুর রস মিশান। আপনি চাইলে এর সাথে ময়দা দিতে পারেন। আর বাড়িতে যদি কাচা গরুর দুধ থাকে তবে তাও মিশাতে পারেন। এরপর এই পেস্টটি মুখে ও ঘাড়ে লাগিয়ে রাখুন মিনিট ১০ এর মতো। তারপর নরমাল পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এইভাবে ১ দিন পর পর ৭ দিন ব্যবহার করলে ঘাড়ের কালো দাগ চলে যাবে ও মুখের দাগ গুলা চলে যাবে। ত্বক হবে সুন্দর ও কোমল। 

 

আরো পড়ুনঃ চুল সিল্কি করার উপায়

 

লেবু ও চিনি দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায়

বাজারে পাউডার চিনি পাওয়া যাই, যা দেখতে একদম আদার মতো। সেগুলা কিনতে পারেন বা বাড়িতে থাকা মোটা চিনি দিয়েও কাজ চালাতে পারেন। তবে সেক্ষেত্রে খুব আস্তে ধিরে এগোতে হবে। প্রথমে একটি পাতি লেবু মাঝ খান থেকে কেটে নিন। তারপরে সেটিতে কয়েক বিন্দু পরিমান চিনি লাগায়ে নিন তারপর লেবুটি আপনার মুখে খুব আস্তে আস্তে ঘষুন। মনে রাখবেন মুখে বেশি চাপ দিবেন নাহ। চাপ দিলে কিন্তু মুখ কেটে যেতে পারে এবং সেখানে কাটার দাগ দেখা যেতে পারে। এই পদ্ধতি অবল্বন করে ঘাড়ের কালো দাগ খুব ভালভাবে দূর করা যাই। মুখ ফর্সা না করলেও মুখের দাগ দূর করতে এই পদ্ধতি খুব ভাল ভূমিকা রাখে। 

লেবু ও আলু দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায়
লেবু ও আলু দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায়

 

আলু দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায়

চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে আলুর ভূমিকা অপরিসীম। প্রথমে মুখ ভালভাবে ধুয়ে নিন। তারপর একটি আলু কেটে ২ টা পাতলা টুকরা করে নিন। তারপর সেটি চোখের উপর দিয়ে শুয়ে থাকুন ১০ মিনিট। আপনি চাইলে আলুর রস বের করে নিয়ে তা মুখে লাগায়ে রাখতে পারেন। এতে করে রাত জাগার কারনে মুখের উপর পড়া কাল দাগ দূর হবে ও চোখের নিচের কাল দাগ ও চলে যাবে। 

 

টুথপেস্ট দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায়

টুথপেস্ট যে কেবল দাতের ময়লা দূর করে এমনটা কিন্তু নয়। এই টুথপেস্ট দিয়ে আপনি চাইলে ব্রণ দূর করতে পারবেন। আপনার যেখানে ব্রণ হয়েছে সেখানে এক ফোটা টুথপেস্ট নিন, তারপর ব্রনের উপর লাগায়ে রাতে ঘুমায়ে পড়ুন। সকালে উঠে দেখবেন ব্রণ উধাও হয়ে গেছে। এছাড়াও আপনি টুথপেস্টের সাথে কয়েক ফোটা লেবুর রস মিশিয়ে তা সারা মুখে লাগাতে পারেন। এতে করে মুখ ফর্সা হবে। এবং মুখের ময়লা চলে যাবে। মোটামোটি যেকোন টুথপেস্ট দিয়েই এই কাজ করতে পারেন। 

 

দুধ দিয়ে ফর্সা হওয়ার উপায়

কাচা দুধের সাথে লেবুর রস মিশালে তা প্রাকৃতিক ব্লিচ এর কাজ করে। একটি বাটিতে পরিমান মতো কাচা দুধ নিন ও সাথে কয়েক ফোটা লেবুর রস ও মধু নিন। তারপর সেটি মুখে লাগান ও ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর মুখ দুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে ২-৩ বার ব্যবহার করুন। এটি ত্বকের কোনরূপ ক্ষতি ছাড়া ত্বক স্থায়ীভাব উজ্জ্বল করবে। 

 

আমাদের লেখা ব্লগ গুলা ভাল লাগলে তা আপনার বন্ধুদের কাছে শেয়ার করবেন প্লিজ। ধন্যবাদ সবাইকে আমাদের সাথে থাকার জন্য। 

 

Leave a Comment